সংবিধানের প্রথম ভাগ- প্রজাতন্ত্র

বাংলাদেশের সাংবিধানিক নাম ‘গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ(The People’s Republic of Bangladesh)’। প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম। প্রজাতন্ত্রের জাতীয় সঙ্গীত “আমার সোনার বাংলা”র প্রথম দশ চরণ৷

প্রজাতন্ত্রের জাতীয় প্রতীক হইতেছে উভয় পার্শ্বে ধান্যশীর্ষবেষ্টিত, পানিতে ভাসমান জাতীয় পুষ্প শাপলা, তাহার শীর্ষদেশে পাটগাছের তিনটি পরস্পর-সংযুক্ত পত্র, তাহার উভয় পার্শ্বে দুইটি করিয়া তারকা৷

বাংলাদেশের জনগণ জাতি হিসাবে বাঙালী এবং নাগরিকগণ বাংলাদেশী বলিয়া পরিচিত হইবেন।

সংবিধানের ১৪২ অনুচ্ছেদে(সংবিধানের বিধান সংশোধনের ক্ষমতা) যাহা কিছুই থাকুক না কেন, সংবিধানের প্রস্তাবনা, প্রথম ভাগের সকল অনুচ্ছেদ(প্রজাতন্ত্র), দ্বিতীয় ভাগের সকল অনুচ্ছেদ(রাষ্ট্র পরিচালনার মূলনীতি), নবম-ক(১৪১ক-জরুরী-অবস্থা ঘোষণা) ভাগে বর্ণিত অনুচ্ছেদসমূহের বিধানাবলী সাপেক্ষে তৃতীয় ভাগের সকল অনুচ্ছেদ(মৌলিক অধিকার) এবং একাদশ ভাগের ১৫০ অনুচ্ছেদসহ (ক্রান্তিকালীন ও অস্থায়ী বিধানাবলী) সংবিধানের অন্যান্য মৌলিক কাঠামো সংক্রান্ত অনুচ্ছেদসমুহের বিধানাবলী সংযোজন, পরিবর্তন, প্রতিস্থাপন, রহিতকরণ কিংবা অন্য কোন পন্থায় সংশোধনের অযোগ্য হইবে।

প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রীয় সীমানা , রাষ্ট্রধর্ম, ভাষা, জাতীয় সঙ্গীত, পতাকা ও প্রতীক, ইত্যাদি নির্ধারন করে জাতির পিতা রাজধানীতে গিয়ে নাগরিকদের সাথে সংবিধানের প্রধান বিষয় গুলো নিয়ে আলোচনা করলেন।

১৷ প্রজাতন্ত্র
২৷ প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রীয় সীমানা
২ক৷ রাষ্ট্রধর্ম
৩৷ রাষ্ট্রভাষা
৪৷ জাতীয় সঙ্গীত, পতাকা ও প্রতীক
৪ক। জাতির পিতার প্রতিকৃতি
৫৷ রাজধানী
৬৷ নাগরিকত্ব
৭৷ সংবিধানের প্রাধান্য
৭ক। সংবিধান বাতিল, স্থগিতকরণ, ইত্যাদি অপরাধ
৭খ। সংবিধানের মৌলিক বিধানাবলী সংশোধন অযোগ্য

সম্পূর্ণ ধারা দেখতে ভিজিট করুন- গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান

Add a Comment