(১৩) কাজী নজরুল ইসলাম এর উক্তি

১। দেখিয়া শুনিয়া ক্ষেপিয়া গিয়াছি তাই যাহা আসে কই মুখে — আমার কৈফিয়ত ( কবিতা)

২। চাষী ওরা, নয়কো চাষ, নয়কো ছোট লোক

৩। মম একহাতে বাঁকা বাঁশের বাঁশরী, আর হাতে রণতূর্য ——- বিদ্রোহী (কবিতা)

৪। বাতায়ন পাশে গুবাক তরুর সারি (গুবাক মানে সুপারি)

৫। দুর্গম গিরি কান্তার মরু দুস্তর পারাপার (গান)

৬। হে দারিদ্র তুমি মোরে করেছো মহান
তুমি মোরে দানিয়াছ খ্রিষ্টের সম্মান
কণ্টক মুকুট শোভা—— (কবিতা)

৭। কাণ্ডারী এ তরীর পাকা মাঝি মাল্লা
দাঁড়ি মুখে সারিগান- লা শরীক আল্লাহ —– খেয়াপারের তরণী (কবিতা)

৮। বহু যুবককে দেখিয়াছি যাহাদের যৌবনের উর্দির নিচে বার্ধকের কঙ্গাল মূর্তি

৯। বৃথা ত্রাসে প্রলয়ের সিন্ধু ও দেয়া ভার ঐ হল পুণ্যের যাত্রীরা খেয়া পার।

১০। রাখাল বলিয়া কারে করো হেলা, ও-হেলা কাহারে বাজে!
হয়তো গোপনে ব্রজের গোপাল এসেছে রাখাল সাজে ! —— মানুষ (কবিতা)

১১। ফাঁসির মঞ্চে গেয়ে গেল যারা জীবনের জয়গান
আসি’ অলক্ষ্যে দাঁড়ায়েছে তারা, দিবে কোন বলিদান? —– কাণ্ডারী হুশিয়ার (কবিতা)

১২। কাঁটাকুঞ্জে বসি তুই গাথিবি মালিকা
দিয়া গেনু ভালে তোর বেদনার টিকা

১৩। গাহি সাম্যের গান
ধরণীর হাতে দিল যারা আনি ফসলের ফরমান

১৪। গাহি সাম্যের গান
যেখানে আসিয়া এক হয়ে গেছে সব বাঁধা ব্যবধান —–সাম্যবাদী (কবিতা)

১৫। সাম্যের গান গাই
আমার চক্ষে পুরুষ-রমণী কোনো ভেদাভেদ নাই! ——- নারী (কবিতা)

১৬। গাহি সাম্যের গান –
মানুষের চেয়ে বড় কিছু নাই , নহে মহীয়ান ——- মানুষ (কবিতা)

১৭। নিচে পাপ-সিন্দু তুঙ্গ তরঙ্গ।
মৃত্যুর মহানিশা রুন্দ্র উলঙ্গ
নিঃশেষে নিশাচর গ্রাসে মহাবিশ্বে,
ত্রাসে কাপে তরণীর পাপী যিত নিঃস্বে

১৮। আমি বেদুঈন, আমি চেঙ্গিস আমি আপনারে ছাড়া করি না কাহারে কুর্নিশ।

১৯। কারার ঐ লৌহ কপাট
ভেঙে ফেল করবে লোপাট —— ভাঙ্গার গান (গান)

আরও দেখুন

কাজী নজরুল ইসলাম
কাজী নজরুল ইসলাম এর শিক্ষাজীবন
কাজী নজরুল ইসলাম এর কর্মজীবন
কাজী নজরুল ইসলাম এর বিভিন্ন নাম
কাজী নজরুল ইসলামের প্রথম রচনা
কাজী নজরুল ইসলাম এর উপন্যাস
কাজী নজরুল ইসলাম এর নাটক কাব্যগ্রন্থ ও অন্যান্য
কাজী নজরুল ইসলাম এর পুরস্কার ও খেতাব
কাজী নজরুল ইসলাম এর নিষিদ্ধ গ্রন্থ ও কারাদণ্ড
কাজী নজরুল ইসলাম -সাহিত্য উৎসর্গ
কাজী নজরুল ইসলাম এর বাংলাদেশ যাত্রা
কাজী নজরুল ইসলাম এর কয়েকটি উল্লেখযোগ্য কবিতা
কাজী নজরুল ইসলাম – বিবিধ

Add a Comment